,

মোস্তাফিজের কাছেই পরাস্ত চিটাগং

News

ঘরের মাঠে টানা দুই ম্যাচেই হারলো বন্দরনগরীর টিম চিটাগাং ভাইকিংস। শনিবার উত্তেজনা ছড়িয়েও জিততে পারেনি চিটাগাং। রাজশাহী কিংসের কাছে ৭ রানে হেরেছে মুশফিকের চিটাগাং ভাইকিংস।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে জনসন চার্লসের ফিফটি, রায়ান টেন ডেসকাট ও ক্রিশ্চিয়ান জনকারের ঝড়ো ইনিংসে ভর করে ৫ উইকেটে ১৯৮ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে রাজশাহী কিংস। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৫ রান করেন চার্লস। ১৭ বলে ৩৭ করেন জনকার। ১২ বলে ২৭ রান করেন রায়ান টেন।

ভাইকিংসদের হয়ে খাদেল অাহমেদ ২ টি, অাবু জায়েদ রাহি ১ টি ও ডেলপোর্ট ১ টি করে উইকেট নেন।

১৯৯ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের শুরু থেকেই ব্যাটিং তাণ্ডব চালান মোহাম্মদ শেহজাদ। মেহেদী হাসান মিরাজের বলে সৌম্য সরকারের হাতে ক্যাচ তুলে বিদায় নেয়ার আগে ২২ বলে পাঁচটি ছয় এবং তিন চারের সাহায্যে ৪৯ রান করেন শেহজাদ।

শেহজাদ অাউট হলেও রানের চাকা সচল রেখে ৩২ বলে ফিফটি তুলে নেনে ইয়াসির। চলতি বিপিএলে এটা তার তৃতীয় ফিফটি। আরাফাত সানির স্পিনেবিভ্রান্ত হওয়ার আগে ৩৮ বলে সাত চার ও দুই ছক্কায় ৫৮ রান করেন ইয়াসির।

ইয়াসিরের পর মুশফিকও টিকেনি বেশিক্ষণ। ২০ বলে ২২ রান করে মুমিনুলের হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেন তিনি। ক্রিজে নেমেই ঝড় তুলেন সিকান্দার রাজা। ১৫ বলে ২৯ রান করে মুস্তাফিজের শিকারে পরিণত হয় রাজা। তারপর অার ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি চিটাগাং।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য চিটাগংয়ের প্রয়োজন ছিল ১৩ রান। ওভারের প্রথম বলে ফর্মে থাকা সিকান্দার রাজাকে আউট করেন মোস্তাফিজ। পরের তিন বলে চার রান আদায় করে নেয়চিটাগং। ওভারের পঞ্চম বলে রবিউল হককে বোল্ড করেন মোস্তাফিজ। শেষ বলে ১ রানের বেশি নিতে পারেনি চিটাগং। মোস্তাফিজ নৈপুণ্যে৭ রানের জয় পায় রাজশাহী কিংস। ২৮ রানে ৩উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন মোস্তাফিজুর রহমান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

রাজশাহী কিংস: ২০ ওভারে ১৯৮/৫ (চার্লস ৫৫, জনকার ৩৭, ইভান্স ৩৬, রায়ান টেন ২৭, সৌম্য ২৬; খালিদ ২/৩২)।

চিটাগং ভাইকিংস: ২০ ওভারে ১৯১/৮ (ইয়াসির ৫৮, শেহজাদ ৪৯, সিকান্দার ২৯; মোস্তাফিজ ৩/২৮)।

ফল: রাজশাহী কিংস ৭ রানে জয়ী।

ম্যাচসেরা: মোস্তাফিজুর রহমান (রাজশাহী কিংস)।

     এ জাতীয় আরও খবর
Vladimir Ducasse Jersey