,

মমর ‘অন্ধকার ঢাকা’ নিয়ে চলছে তুমুল সমালোচনা

News

ঈদে প্রচারিত নাটক কিংবা টেলিছবির প্রতি দর্শকদের আগ্রহ একটু বেশিই লক্ষ্য করা যায়। উৎসব ঘিরে নির্মাতারাও নির্মাণ করে থাকেন ভিন্ন গল্পের নাটক বা টেলিছবি। ঈদের এ আয়োজনগুলো থেকে কিছু কিছু গল্প দর্শকমহলে হয়ে ওঠে প্রশংসিত বা আলোচিত। আবার কিছু গল্প সমালোচনারও জন্ম দেয়। যেমন তোপের মুখে পড়েছে সুমন আনোয়ারের ‘অন্ধকার ঢাকা’ টেলিছবিটি। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে এটি নিয়ে চলছে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা।

গল্পের শুরুটা হয় পরী চরিত্রে অভিনয় করা জাকিয়া বারী মমকে ঘিরে। মায়ের চিকিৎসার খরচ এবং জীবিকার জন্য পরী বেছে নেয় অন্ধকার জগত। টেলিছবিতে অনেকটা খোলামেলা পোশাক আর অশ্লীল কথা-বার্তায় হাজির হয়েছেন পরী, যা দর্শকমহলে প্রশ্ন তুলেছে।

অন্যদিকে, টেলিছবিতে পুলিশ অফিসার টিটুর চরিত্রে অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। গল্পের শুরুতে তাকে দেখানো হয়, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার নির্দেশে সন্ত্রাসী জনিকে ধরার মিশনে নামে সে। এতে জনি চরিত্রে অভিনয় করেছেন শ্যামল মাওলা। যে কি-না পুরনো ঢাকার নামকরা সন্ত্রাসী। জনিকে ধরতে পুলিশ তৎপর হয়ে ওঠে। একটা সময় ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে পরীকে (মম)। কারণ পরী ও জনি একে অপরকে ভালোবাসে। গল্পে দেখা যায়, পরীর সঙ্গে অবৈধ্য সম্পর্কে লিপ্ত হয় পুলিশ অফিসার টিটু। একজন সোর্সকেও দেওয়া হয় মিথ্যে মামলা। এ বিষয়গুলো নিয়েও দর্শকমহলে সমালোচনার ঝড় বইছে।

‘অন্ধকার ঢাকা’ টেলিছবির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন জাকিয়া বারী মম, চঞ্চল চৌধুরী, শ্যামল মাওলা, রাশেদা চৌধুরী নেহাসহ অনেকে। এটি প্রচার হয় বাংলাভিশনে ঈদের তৃতীয় দিন (গত শুক্রবার) বেলা ২টা ১০ মিনিটে।

     এ জাতীয় আরও খবর
Vladimir Ducasse Jersey